Market Status: Closed
  Sunday, 14 Jul '24
   14:41:08 (BST)

 

১৪ মার্চ, ২০২৩, চট্টগ্রামঃ

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে সারা বিশ্বজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জগুলি জাতিসংঘের সাসটেনেবল স্টক এক্সচেঞ্জস ইনিশিয়েটিভস (Sustainable Stock Exchanges Initiative), ওয়ার্ল্ড ফেডারেশন অফ এক্সচেঞ্জস (World Federation of Exchanges),  ইউ এন ওমেন (UN Women), ইউএন গ্লোবাল কম্পেক্ট (UN Global Compact)  এবং ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স কর্পোরেশন ( International Finance Corporation) - এই প্রতিষ্ঠান গুলির সাথে ‘রিং দা বেল’ ( Ring the Bell) কার্যক্রম উদযাপন করে আসছে । ব্যবসা ও টেকসই উন্নয়নের জন্য জেন্ডার ইকুইটি (Gender Equality)-এর গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিই এই প্রোগ্রামের মূল লক্ষ্য। এই প্রতিষ্ঠানগুলির সমন্বিত উদ্যোগে বিশ্ব জুড়ে জেন্ডার ডিসক্রিমিনেশন (Gender discrimination) বন্ধ করার জন্য ভূমিকা পালন করাও এই প্রোগ্রামের লক্ষ্য। এটি জাতিসংঘের  সাসটেনেবল ডেভেলপমেন্ট গোলস (Sustainable Development Goals), মূলত “Goal 5: Gender Equality”- এর সাথে সম্পৃক্ত।

 

 

উপরোক্ত বিষয়গুলোকে বিবেচনা করে আজ সিএসই তার চটগ্রামস্থ প্রধান কার্যালয়ে ‘রিং দা বেল ফর জেন্ডার ইকুয়ালিটি অন দি অকেশন অব ইন্টারন্যাশনাল ওমেন্স ডে’ বিষয়ক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে । উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মিস আইভি হাসান, প্রাক্তন ভাইস প্রেসিডেন্ট চিটাগং ওমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন মিস নাদিয়া ইসলাম, চীফ ফিনান্সিয়াল অফিসার, ইস্টার্ন কেবলস লিমিটেড , ট্রেক এর সম্মানিত নারী প্রতিনিধিবৃন্দ,  সিএসই এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) জনাব মোঃ গোলাম ফারুক,  চিফ রেগুলেটরি অফিসার (সিআরও) জনাব মোহাম্মদ মাহাদি হাসান , মিস সোনিয়া হোসেন, হেড অব এইচআর এন্ড লিগাল অ্যাফেয়ার্স এবং সিএসই এর অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ ।

 

স্বাগত বক্তব্যে সিএসই এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) জনাব মোঃ গোলাম ফারুক বলেন, Ring the Bell বা ঘণ্টা বাজিয়ে বিশ্বজুড়ে, পাবলিক মার্কেটগুলি সর্বত্র নারীদের কণ্ঠস্বর এবং দৃশ্যমানতা  জানান দিচ্ছে । এই বছর, আন্তর্জাতিক নারী দিবসের থিম হল #EmbraceEquity । অর্থনীতিতে গতিশীলতা এবং সাফল্যের জন্য জেন্ডার সমতা অপরিহার্য । আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২৩ #EmbraceEquity ক্যাম্পেইন থিমের লক্ষ্য হল, কেন আমাদের নারীদের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করাই কেবল যথেষ্ট নয়, সে সম্পর্কে একটা বৈশ্বিক সচেতনতা তৈরি করা । এই বৈষম্য দূর করতে হলে সত্যিকারের অন্তর্ভুক্তি এবং ন্যায়সঙ্গত পদক্ষেপ গ্রহনের প্রয়োজন রয়েছে । আর আমাদের আজকের এই আয়োজন এর লক্ষ্যই হলো- জেন্ডার সমতা উন্নীতকরন, একটি বৈচিত্র্যময় এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক কর্মক্ষেত্রের সুবিধাগুলি তুলে ধরা এবং সবার জন্য একটি উন্নত ভবিষ্যত নির্মাণে নারীর অবদানকে স্বীকৃতি দেয়া ।

 

 

 এই থিমের পরিপূরক হিসেবে যে উদ্দেশ্য সমূহ সামনে চলে আসে, সেগুলো হলো:

  • সমাজের সর্বক্ষেত্রে নারীর সমান অংশগ্রহণ উৎসাহিত করে যথাযথ পরিবেশ তৈরির ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখা;
  • UN নারী ক্ষমতায়ন নীতিমালা (WEP) বাস্তবায়ন, জাতিসংঘে নারী (UN Women) ও জাতিসংঘের গ্লোবাল কম্প্যাক্টের মধ্যে যৌথ উদ্যোগ, যা নারীর ক্ষমতায়নের জন্য সার্বজনীন নির্দেশনা প্রদান করা;
  • SDG Goal-5 ("Gender Equality") সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা, যাতে সকল নারী ও পুরুষের বিরুদ্ধে সার্বজনীন ও ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও বৈষম্য দূর হয়;
  • নারীর পূর্ণাঙ্গ ও কার্যকর অংশগ্রহন এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার সমস্ত স্তরে নেতৃত্বের সমান সুযোগ, পাশাপাশি পরিবার, সম্প্রদায়, অর্থনীতি এবং ব্যবসায়ে নারীদের অংশগ্রহণ উৎসাহিত করা;
  • Gender সমতা অগ্রগতির জন্য স্টক এক্সচেঞ্জ এবং এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকল স্টেকহোল্ডার প্রতিষ্ঠান গুলো থেকে বাস্তব পরিবেশ তৈরির প্রতিশ্রুতি প্রাপ্তি।

 

প্রধান অতিথি মিস আইভি হাসান বলেন, আমি আমার পরিবার থেকে যতখানি সহযোগিতা পেয়েছি তা সব নারীর জীবনে কাম্য কিন্তু এখনও তেমন পরিবেশ তৈরি হয় নি । আমাদের পরিবার থেকেই পরিবেশ তৈরির দায়িত্বটা নিতে হবে । এখনও অনেক আস্থাহীনতা রয়েছে নারীদের উপর, যেমন বলতে পারি, ব্যাংক গেরান্টার হিসেবে এখনও কেউ নারীকে না ভেবে একজন পুরুষকেই উপযুক্ত মনে করে অথচ ব্যাংক লোন এর ক্ষেত্রে নারীদের খেলাপী হওয়ার দৃষ্টান্তের চাইতে দ্রুত পরিশোধ করার প্রবনতা এবং রেকর্ড-ই বেশী । তিনি আরও বলেন যে, নারীদেরকে তার সম্মানের জায়গাটা দিতে হবে , হোক সেটা ঘরে বা বাইরে ।

 

বিশেষ অতিথি মিস নাদিয়া ইসলাম বলেন, নারীদের কর্ম পরিবেশ আগের চাইতে এখন অনেক প্রসারিত । ইকুইটি ব্যাপারটা এখনও ততখানি সমুন্নত না হলেও অদূর ভবিষ্যতে তাও অর্জন সম্ভব হবে । আমাদের অর্থনীতির মাপদন্ডের ভিত্তিতে অর্থাৎ জিডিপির মানে নারীদের অবদান উল্লেখযোগ্য না হলে একেবারে অগ্রহণযোগ্য নয়, এ হার বাড়ছে এবং সামনে আরও বাড়বে বলে আশা করছি ।  তিনি আরও বলেন, নারীরা সব সময় সিধান্তহীনতায়  ভুগে, তাই উপযুক্ত পরিবেশ এবং সহযোগীতা পেলে সেও  হবে সফল ব্যক্তিত্ব, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা এবং সহকর্মী । আর এই অনুশীলন শুরু হতে হবে প্রতিটি পরিবার থেকে ।

 

এছাড়াও ট্রেক এর সম্মানিত নারী প্রতিনিধিবৃন্দ এবং সিএসইতে কর্মরত নারী কর্মকর্তাবৃন্দও তাদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন ।

 

সিএসই এর মিস সোনিয়া হোসেন তার সমাপনি বক্তব্যে সম্মানিত অতিথিবৃন্দকে তাদের মূল্যবান ব্যস্ত সময় থেকে কিছুটা সময় দেয়ার জন্য এবং অনুষ্ঠানটি সাফল্যমণ্ডিত  করার জন্য কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন ।

 

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সিএসই এর মিস রুবাইয়া আক্তার , ডেপুটি ম্যানেজার, লিস্টিং ডিপার্টমেন্ট ।

 

বিস্তারিত জানতে

তানিয়া

সিএসই-সি এন্ড পি আর

ফোনঃ ০১৭৬০৭৪৫৭৩৬

 

| March 14, 2023 |