Market Status: Open
  Sunday, 14 Jul '24
   13:16:37 (BST)

03 Feb, 2018 আজ ছিল সিএসই এর ষষ্ঠ ক্যাপিটাল মার্কেট ফেয়ার এর শেষ দিন. শেষ দিনে ছিল দর্শনার্থীদের পদ চারণায় মুখর . মেলা প্রাঙ্গন ছিলো সব অংশগ্রহনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রচারণায় উৎসব আমেজে. শেষ দিনে ও ছিল দুটি সেশন. সকালে ক্যারিয়ার প্রগ্রেস ইন ক্যাপিটাল মার্কেট এর উপর মূল প্রেজেনটেশন উপস্থান করেন সিএসই এর পরিচালক এবং বিএমবিএ এর প্রধান জনাব মহম্মদ নাসির উদ্দিন চৌধুরী. তার উপস্থাপনে উঠে আসে বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট এ ক্যারিয়ার গঠনের জন্য সময়ের উপযোগি দিক নির্দেশনা. যে কোনো বিষয়ে লেখাপড়া শেষ করে এখানে কাজ করার সুযোগ রয়েছে. আছে ক্যারিয়ার এর ক্রম উন্নতির সম্ভাবনা. ডাইনামিক পরিবেশে কাজ এর মাধ্যমে বিশ্ব পরিমণ্ডল জায়গা নেয়ার সুযোগ. চার ধরণের প্রফেশন এর কথা আসে: রিসার্চ,ট্রেডিং, ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকিং অর্র্যাঞ্জমেন্টস এবং অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট. এই প্রফেশন গুলো তে যুক্ত হতে গেলে কি কি কোয়ালিফিকেশন প্রয়োজন সে সম্পর্কে ও ধারণা দেওয়া হয় . এতে আরো বক্তব্য প্রদান করেন বিএসইসি এর নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব এটিএম তারেকুজ্জামান ও জনাব সাইফুর রহমান, আইডিএলসি এর সিইও জনাব সাইফুদ্দিন এবং গ্রীন ডেল্টা সিকিউরিটিস এর সিইও জনাব ওয়াফি শফিক মিনহাজ খান . যথারীতি দুপুরের পরে শুরু হয় দ্বিতীয় এবং শেষ টেকনিকাল সেশন �অনলকিং পোটেনশিয়ালস অফ ক্যাপিটাল মার্কেট �.মূল প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ড. মোশররফ হোসাইন , এফসিএ. মূল উপস্থাপনায় উঠে আসে বাংলাদেশ এর জিডিপি গ্রোথ 7% যা বিশ্বের অনেক দেশ এর চাইতে যথেষ্ট ভালো. এই গ্রোথ ছিল 1910-11 সালে 6.52 তা 2016-17 এসে দাঁডিয়েছে 11.24. এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএসইসি চেয়ারম্যান প্রফেসর এম খাইরুল হোসাইন হোসেইন, তিনি বলেন , আমাদের নজর বৈদেশিক ইনভেস্টমেন্ট(ফরেন ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ) এর দিকে .এখন পর্যন্ত কয়েকটা মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি আমাদের মার্কেট এ লিস্টেড আছে .আমরা চাচ্ছি আরো বিদেশী বিনিয়োগ আসুক এতে দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত . বৈদেশিক বিনিয়োগ আসলে পরে তাদেরকে ক্রমান্বয়ে স্টক মার্কেটে নিয়ে আশা হবে.এসব কোম্পানি যদি স্টক মার্কেট এ আসে তবে মার্কেট আরো বেগবান হবে . আলোচনায় আরো অংশ নেন সি এস ই ডিরেক্টর সাইদুর রহমান এবং মেজর (অব.) এমদাদুল ইসলাম .এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশেষ অতিথি, জনাব মাহবুবুল আলম, প্রেসিডেন্ট চিটাগাং চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (সিসিসিআই). এতে জনাব সায়েদুর রাহমান ডিরেক্টর ,সিএসই বলেন ,আমাদের নজর বৈদেশিক ইনভেস্টমেন্ট এর দিকে .কিন্তু অনেক মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি লিস্টেড হয়নি . অর্থমন্ত্রী সাহেবকে আগেও দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি ,আজ ও করছি, আজ দেখা হলে একই অনুরোধ করতাম, এই ব্যাপারে বিশেষ বিবেচনা করতে. এরপর শুরু হয় সম্মাননা এবং পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান .প্রথমে সিএসই এর প্রাক্তন সাতজন ডিরেকটর দের সম্মাননা দেয়া হয় . এরপর সম্মাননা দেয়া হয় সিএসই এর শীর্ষ দশ ট্রেক যারা 2017 সালের জানুয়ারী থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সর্ব্বোচ্চ ট্রেড করেছেন . ট্রেকগুলো হলো লংকাবাংলা সিকিউরিটিজ ,বি রিচ সিকিউরিটিজ আইসিবি সিকিউরিটিজ ,কবির সিকিউরিটিজ মীনহার সিকিউরিটিজ ,রিলায়েন্স ব্রোকারেজ সিকিউরিটিজ ,প্রুডেনটিয়াল সিকিউরিটিজ ,আইল্যান্ড সিকিউরিটিজ এবং ইন্টারন্যাশনাল সিকিউরিটিজ কোম্পানি লিমিটেড. এরপর নাম ঘোষণা করা হয় সিএসই সিএমযেএফ বেস্ট ক্যাপিটাল মার্কেট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড .এতে তিনটি ক্যাটাগরি তে রিপোর্ট আহবান করা হয়েসিলো এবং সুনির্দিষ্ট নিয়মের ভিত্তিতে তিনটি ক্যাটেগরিতে তিনটি বেস্ট রিপোর্ট নির্বাচিত হয়েছে .যাদের রিপোর্টগুলো বেস্ট হয়েছে তারা হলেন ইলেকট্রনিক মিডিয়া তে জনাব জিয়াউল হক সবুজ (বাংলাভিশন ) ,প্রিন্ট মিডিয়া তে জনাব নিয়াজ মাহমুদ (শেয়ার বীজ ), অনলাইন মিডিয়া তে মাহফুজুল ইসলাম( বাংলানিউজ24). তাঁদের হাথে সম্মাননা ক্রেস্ট,সার্টিফিকেট এবং নগদ অর্থের চেক তুলে দেন বিএসইসি এর চেয়ারম্যান প্রফেসসর এম খাইরুল হোসেইন এবং সি এম জে এফ এর প্রেসিডেন্ট জনাব হাসান ইমাম রুবেল রুবেল . আরো উপস্থিত ছিলেন জনাব মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন নিজামী,জনাব মোহাম্মদ কামালুজ্জামান,জনাব স্বপন কুমার বলা,জনাব মোহাম্মদ আমজাদ হোসেইন ,কমিশনার বিএসইসি এবং সিএসই এম ডি এম সাইফুর রহমান মজুমদার. এছাড়া ও রেফেল ড্র এবং মনোজ্ঞ সাস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তিন দিনর এ মেলার যবনিকা টানা হয়.

| February 03, 2018 |